অ্যাডভোকেট হাবিব মনোনয়নপত্রের বৈধতা ফিরে পেলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪৮ পিএম, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১১৪
টাঙ্গাইল-৫ (সদর) আসনে বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট খন্দকার আহসান হাবিব তার মনোনয়নপত্রের বৈধতা ফিরে পেয়েছেন। মঙ্গলবার হাইকোর্টে রিট পিটিশনের মাধ্যমে তিনি এ বৈধতা পান। 

এরআগে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও প্রশাসক কায়ছারুল ইসলাম যাচাই-বাছাই করে মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। এসময় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জমাদানকৃত এক শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষরে গড়মিল ধরা পড়ে। 

বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির বহিষ্কৃত সদস্য খন্দকার আহসান হাবিব সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী। তার বাড়ি টাঙ্গাইল শহরের বিশ্বাস বেতকায়। তিনি ১৯৯৩ সালে টাঙ্গাইল পৌরসভার কাউন্সিলর ছিলেন। ২০০৮ ও ২০১৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে টাঙ্গাইল সদর আসন থেকে তিনি বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন।

অ্যাডভোকেট খন্দকার আহসান হাবিবসহ কয়েকজন ব্যক্তি ‘স্বতন্ত্র গণতন্ত্র মঞ্চের’ ব্যানারে ১৫ নভেম্বর ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে তারা জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দেন। ওই দিনই বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটি থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয়। 

অ্যাডভোকেট খন্দকার আহসান হাবিব টাঙ্গাইল-৫ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র বৈধ হওয়ার তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন টাঙ্গাইলে যাচাই-বাছাইয়ে আমার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। পরে মহামান্য হাইকোর্টে রিট পটিশন করে প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার বৈধতা ফিরে পেয়েছি। 

খন্দকার আহসান হাবীব আরো বলেন গণতন্ত্র রক্ষা করতে নির্বাচনের বিকল্প নেই। স্বতন্ত্র গণতন্ত্র মঞ্চ কোনো রাজনৈতিক সংগঠন নয়। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি । কারও কোনো চাপে কিংবা আওয়ামী লীগের সঙ্গে আঁতাত করি নাই। টাঙ্গাইলের সাধারণ মানুষ আমার পক্ষে আছে। আশা করি এবার অত্যন্ত সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে। ফলাফল যাই হোক নির্বাচনে যথাযথ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবো।