টাঙ্গাইলে বন্যার পরিস্থিতি অবনতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:২৮ পিএম, রোববার, ৭ জুলাই ২০২৪ | ৩২

টাঙ্গাইল জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। উজান থেকে নেমে আসা ঢল ও টানা বৃষ্টিপাতের কারণে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। এবং পানির  তীব্র  স্রোতে ভেঙ্গে যাচ্ছে নদী তীরবর্তী এলাকার গ্রামীন কাঁচা-পাকা সড়ক। 

এসব সড়ক ভেঙ্গে নদীর পানি খুব দ্রুত লোকালয়ে প্রবেশ করছে। এতেকরে প্লাবিত হয়ে হচ্ছে  নতুন নতুন বাড়ি-ঘর, হাট-বাজার, ফসলী জমিসহ বিস্তির্ণ জনপদ। 

এদিকে বর্ন্যাত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

 রবিবার (৭ জুলাই)  টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ডের দেয়া তথ্যমতে, গত ২৪ ঘন্টায় জেলার সব নদীর পানিই বৃদ্ধি পেয়েছে। ঝিনাই নদীর পানি বিপদসীমার ১০০ সেন্টিমিটার, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদীর পানি বিপদসীমার ৩৬ সেন্টিমিটার এবং ধলেশ্বরী নদীর পানি বিপদসীমার ১৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

গত ২৪ ঘন্টায় ঝিনাই নদীর পানি জোকারচর পয়েন্টে ৮ সেন্টিমিটার, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদীর পানি পোড়াবাড়ি পয়েন্টে ২৪ সেন্টিমিটার, ধলেশ্বরী নদীর পানি এলাসিন পয়েন্টে ১৩ সেন্টিমিটার, ফটিকজানি নদীর পানি নলচাপা ব্রীজ পয়েন্টে ৬ সেন্টিমিটার, বংশাই নদীর পানি কাউলজানী পয়েন্টে ৭ সেন্টিমিটার, মির্জাপুর পয়েন্টে ১৩ সেন্টিমিটার, এবং মধুপুর পয়েন্টে ১৫ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে।

টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: সাজ্জাদ হোসেন বলেন,উজান থেকে নেমে আসা ঢল ও টানা বৃষ্টিপাতের কারণে টাঙ্গাইলের প্রধান প্রধান নদ নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। আশা করছি আগামী ৯ জুলাই হতে পানি কমতে শুরু করবে।

তিনি আরও বলেন যে সমস্ত এলকায় নদী ভাঙ্গান দেখা দিচ্ছে আমরা তৎক্ষনাৎ ডাম্পিং ও জিও ব্যাগ ফেলে প্রতিরোধের ব্যবস্থা নিচ্ছি।