গোপালপুরে ভুট্টার বামপার ফলনে কৃষকের স্বপ্ন পূরণ 

গোপালপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি 
প্রকাশিত: ০৩:৫২ পিএম, সোমবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | ৫৩
টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলায় চলতি মৌসুমে ভুট্টার বাম্পার ফলন হয়েছে। ছাড়িয়ে গেছে ভুট্টা চাষের নির্ধারীত লক্ষ্যমাত্রা। দিগন্ত জোড়া মাঠে সবুজের সমারোহ বাতাসে বিস্তীর্ণ ফসলের মাঠে ঢেউ খেলছে ভুট্টা গাছের শীষ গুলো। আর তাতে লাভের আশায় সপ্ন বুনছেন প্রান্তিক কৃষক। ভুট্টার বাজার দাম বেশি এবং অল্প খরচে অধিক পরিমাণে ফলন পাওয়াতে ভুট্টা চাষে আগ্রহ বেড়েছে স্থানীয় কৃষকদের মাঝে। 
 
উপজেলা কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা যায়,চলতি মৌসুমে লক্ষ মাত্রা ছিলো ৩০০ হেক্টর, যা নির্ধারিত লক্ষ মাত্রার চেয়ে ৫০ হেক্টর বেশি চাষ হয়েছে। হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষের লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এদিকে নির্ধারিত লক্ষমাত্রার চেয়ে দ্বিগুন ভুট্টা চাষ করা হয়েছে। 
 
উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের মো. মফিজুল ইসলাম (মন্টু) জানান, আমার যতটুকু জমি আছে তার অধিকাংশতেই ফুরি ফসলের চাষ করি। কারণ,এ জাতীয় ফসল চাষাবাদ করতে বাড়তি কোনো খরচ করতে হয় না। তাই অল্প খরচেই অধিক লাভবান হতে পারি। এ বৎসর আমি প্রায় আরা'ই বিঘা জমিতে ভুট্টা চাষ করেছি। ফসলও আলহামদুলিল্লাহ ভালো হয়েছে। আমার ভুট্টা ক্ষেত দেখতে আসে অনেকেই,এবং দেখে তারাও চাষ করতে আগ্রহী প্রকাশ করছেন।
 
ইউ'পি সদস্য মো. জুলহাস উদ্দিন বলেন, আমি প্রতি বছর ৩ থেকে ৪ বিঘা জমি লিজ নিয়ে তাতে ভুট্টা চাষ করে থাকি। এবারও তিন  বিঘা জমিতে ভুট্টা লাগিয়েছি গাছ গুলো বেশ ভালো হয়েছে। তবে খরচের তুলনায় ভুট্টা  সংগ্রহের সময় যে দাম থাকে তাতে খরচ পুষিয়ে লাভের অংশ খুবই কম থাকে। তাই ভুট্টা সংগ্রহের সময় সঠিক দাম পেলে ভালো হতো।
 
উপসহকারী কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান বলেন, আমরা উপজেলা কৃষি অফিসার মহোদয়ের নেতৃত্বে প্রতিনিয়ত কৃষকদের মাঝে সুপরামর্শ এবং নিয়মিত মাঠ পরিদর্শন করে থাকি।